কিশোরগঞ্জে এমপি তৌফিক ও লিপির জাল সিলমোহর উদ্ধার

প্রেরণা ডেস্ক: কিশোরগঞ্জের অবৈধভাবে পৌর শহরে জাল সার্টিফিকেট ও স্থানীয় দুই সংসদ এমপি রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক ও সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপির সীলমোহর উদ্ধার করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে জেলা শহর গৌরাঙ্গবাজার মোড়ে ডিজিটাল লিংক নামের কম্পিউটার কম্পোজের দোকানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করার সময় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের জাল সার্টিফিকেট পাওয়া গেছে।

এ সময় ঐ দোকানের কম্পিউটারে কিশোরগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহম্মেদ তৌফিক ও কিশোরগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি আক্তারের সিলমোহড়যুক্ত সুপারিশ পত্র পাওয়া যায়।

জানা যায়, এনএসআই এর তথ্য মোতাবেক এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। পরে দোকান মালিককে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ২০ হাজার জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের কারাদন্ড ঘোষণা দেয়। পরে সাথে জরিমানার ২০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন দোকান মালিক।

এলাকাবাসী জানায়, একটি প্রভাবশালী মহল ডিও লেটার ও আবেদন পত্রে দুই এমপির সই জাল করে আসছিলো এই অসাধু মহলটি সব সময় দুর্নীতির সাথে জরিত। প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের কেউ ধরা পড়ে না। শুধু জরিমানা করলেই হবে না পর্দার অন্তরালের থলের বিড়ালটাকে বের করে আনতে হবে।

ভ্রাম্যমান আদালত চলাকালে দোকানের মালিক আল ফয়সাল উপস্থিত ছিলেন। আল ফয়সাল (৩৫) কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের মনিপুরঘাট এলাকার আঃ হাই এর ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোদাদাদ হোসেন। এ সময় পুলিশ, উৎসুক জনতা ও ইলেকট্রনি-প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

Leave a Comment